আজ বৃহস্পতিবার,৬ই মে, ২০২১ ইং, ২৩শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে রমযান, ১৪৪২ হিজরী
>> জমি সংক্রান্ত ব্যাপারে পূর্বের শত্রুতার জের ধরে হত্যা করার চেষ্টায় আটক-১ >> ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে শিল্প-কারখানায় ৩ দিনের বেশি ছুটি নয় >> নাটোরের বড়াইগ্রামে আগুনে পুড়ে হয়েছে ছাই ক্ষতি হলো প্রায় তিন লক্ষ টাকার মালামাল, >> ফেনী জেলায় শ্রেষ্ঠ অস্ত্র উদ্ধারকারী পুলিশ অফিসার হিসেবে পুরস্কৃত হলেন এসআই মোঃ রাশেদুল হক (রাশেদ) >> অধিনায়ক জাকির হোসেন হলেন কাবাডি দলের গর্ব >> মহানগর সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের দ্বি-বার্ষিক কার্যকরি কমিটি গঠন উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত >> সামাজিক দূরত্ব-শাররিক দূরত্ব কোনটিই তোয়াক্কা করছে না এই সোনার বাংলার আমজনতারা..” >> জনগণ সামাজিক দুরত্ব ও শারীরিক দুরত্ব কিছুই মানছে না। >> জনগণ সামাজিক দুরত্ব ও শারীরিক দুরত্ব কোনটাই মানছেনা। >> শাহ আমানত সেতু সড়কের উপর থেকে মাইক্রোবাস জব্দ ও ১৫ লক্ষ টাকা মূল্যের ৪,৯৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ আটক- ২     

ক্রেডিট কার্ডে ২০ শতাংশের বেশি সুদ নেয়া যাবে না: কেন্দ্রীয় ব্যাংক

সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০,৯:৩১ অপরাহ্ণ

 
Spread the love

ঢাকা : ব্যাংকগুলো ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকদের কাছ থেকে কোনো অবস্থাতেই ২০ শতাংশের বেশি সুদ আদায় করতে পারবে না বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আগামী ১লা অক্টোবর থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে। আজ বৃহস্পতিবার এক সার্কুলারে জারি করে এ নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো ওই সার্কুলারে বলা হয়, ২০১৭ সালের ৩রা অগাস্ট ক্রেডিট কার্ড বিষয়ে একটি নীতিমালা জারি করেছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। তাতে বলা হয়েছিল, ক্রেডিট কার্ডের সুদের হার সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের অন্যান্য ঋণের সুদের সর্বোচ্চ সুদহারের চেয়ে ৫ শতাংশের বেশি হবে না এবং এই সুদহার কেবল মাত্র অপরিশোধিত বকেয়া স্থিতির উপর প্রযোজ্য হবে।

ওই নীতিমালার নির্দেশনা অনুযায়ী, ক্রেডিট কার্ডে নির্ধারিত সীমার সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ আগাম হিসেবে নগদ উত্তোলন করা যাবে এবং ক্রেডিট কার্ডের বিপরীতে গ্রাহককে কোনো আনসলিসিটেড ঋণ বা অন্য কোনো ঋণ দেয়া যাবে না।

“কিন্তু সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, কোনো কোনো ব্যাংক উক্ত নির্দেশনা লঙ্ঘন করে ক্রেডিট কার্ডের বিপরীতে বিভিন্ন নামে বিভিন্ন প্রকার নগদে উত্তোলনযোগ্য ঋণ সুবিধা দিচ্ছে; যা ব্যাংকের ঋণ ঝুঁকি বৃদ্ধি করছে এবং এ ধরনের ঋণের উপর ফ্ল্যাট রেটে অযৌক্তিকভাবে বেশি সুদ আরোপ/আদায় করছে; যা গ্রাহকের স্বার্থ ক্ষুণ্ন করছে।”

এছাড়া কোনো কোনো ব্যাংক ক্রেডিট কার্ডের পরিশোধ না করা বিলের ওপর লেনদেনের তারিখ থেকেই সুদ আরোপ এবং পরিশোধ না করা বিলের বিপরীতে ‘প্রগ্রেসিভ রেটে’ বিলম্ব ফি আদায় করছে বলেও অভিযোগ পাওয়ার কথা জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

সার্কুলারে বলা হয়, এ অবস্থায় ক্রেডিট কার্ড লিমিটের বিপরীতে ঋণ সুবিধাসহ সুদ/মুনাফা যৌক্তিকীকরণ এবং গ্রাহকদের স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

ক্রেডিট কার্ডের সুদ/মুনাফার ওপর ২০ শতাংশের বেশি সুদ নির্ধারণ করা যাবে না। ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধের জন্য নির্ধারিত সর্বশেষ তারিখের পরের দিন থেকে বিলের ওপর সুদ/মুনাফা আরোপ করা যাবে। এক্ষেত্রে কোনোভাবেই লেনদেনের তারিখ থেকে সুদ আরোপ করা যাবে না। বিদ্যমান নীতিমালা অনুযায়ী ক্রেডিট কার্ডের ওপর সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ নগদে উত্তোলনযোগ্য ঋণ সুবিধা ছাড়া অন্য কোনো নামে নগদে উত্তোলনযোগ্য ঋণ সুবিধা দেয়া যাবে না।

বিলম্বে পরিশোধিত কোনো বিলের বিপরীতে শুধুমাত্র একবার বিলম্ব ফি (অন্য যে নামেই অভিহিত করা হোক না কেনো) আদায় করা যাবে। এছাড়া আগের নীতিমালার অন্যান্য শর্ত অপরিবর্তিত থাকবে বলে বাংলাদেশ ব্যাংক জানিয়েছে।

 

Chairman

Md. Riadul Islam (Afzal)
Chairman
www.bdnewstv24.com
 

সর্বশেষ সংবাদ

 

সারাবাংলা

 

 

Site Developed By: Md. Shohag Hossain