প্রচলিত আইনে অনলাইন পত্রিকা প্রকাশ হতে পারে বলে মন্তব্য : নোয়াব

বিডি নিউজ টিভি ২৪ ডট কম : ঢাকা: নিউজ পেপারস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (নোয়াব) এক বিবৃতিতে নতুন করে নিবন্ধন নয়, বরং প্রচলিত আইন ও নীতিমালার আওতায় অনলাইন গণমাধ্যম পরিচালনার দাবি জানিয়েছে।

ছাপা পত্রিকার অনলাইন সংস্করণসহ সব অনলাইন গণমাধ্যমের নিবন্ধন বিষয়ে সরকারের সাম্প্রতিক উদ্যোগের পরিপ্রেক্ষিতে আজ মঙ্গলবার এই দাবি জানায় সংগঠনটি।

বিবৃতিতে বলা হয়, ছাপা পত্রিকাগুলো সরকারের সব নিয়ম মেনে চলছে। সময়ের প্রয়োজনে ও বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে ছাপা পত্রিকাগুলোর অনলাইন সংস্করণ রয়েছে, যেগুলোর মাধ্যমে দেশের পাঠক ছাড়াও প্রবাসী বাঙালিরা তাৎক্ষণিক দেশের খবরাখবর জানতে পারছেন। তাই এসব পত্রিকার অনলাইন সংস্করণের জন্য আলাদা নিবন্ধন কোনোভাবেই যুক্তিসংগত নয়। আর এর প্রয়োজন নেই বলেও মনে করে নোয়াব।

গত ৬ আগস্ট অনলাইন নীতিমালার খসড়া তথ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। সেখানে জাতীয় সম্প্রচার কমিশনের মাধ্যমে অনলাইন গণমাধ্যম পরিচালনার কথা বলা হলেও এটি চূড়ান্ত হওয়ার আগেই তথ্য অধিদপ্তর এক তথ্য বিবরণীর মাধ্যমে অনলাইন পত্রিকার নিবন্ধন কার্যক্রম চালু করে। আবেদনের শেষ সময় ১৫ ডিসেম্বর। নীতিমালা বা কমিশন হওয়ার আগে তথ্য মন্ত্রণালয়ের নির্বাহী আদেশে অনলাইন পত্রিকার নিবন্ধন কার্যক্রম শুরুর এই ঘোষণা স্ববিরোধী ও উদ্দেশ্যমূলক বলে মনে করে নোয়াব।

অনলাইন নীতিমালায় নিবন্ধন কর্তৃপক্ষের কথা বলা হলেও ওই ‘কর্তৃপক্ষ’ (কমিশন) নির্ধারণ না করেই সরকার তথ্য অধিদপ্তরের কাছে নিবন্ধনের দায়িত্ব দিয়েছে, যা যুক্তিসংগত নয় বলে মনে করছে সংগঠনটি। এ অবস্থায় নোয়াব আশঙ্কা করছে, কমিশন গঠিত হওয়ার আগে সরকার অনলাইন গণমাধ্যমের নিবন্ধন বা পরিচালনার বিষয়গুলো নিজ এখতিয়ারে রাখলে এর ওপর সরকারের নিয়ন্ত্রণ কঠোর হবে, যা মুক্ত সাংবাদিকতার অন্তরায় হয়ে উঠতে পারে। তা ছাড়া এই নিবন্ধনকে কেন্দ্র করে দলীয় পরিচয় দেখা, হয়রানি বা আর্থিক লেনদেনের মতো স্পর্শকাতর অভিযোগ ওঠাও দেশের আর্থসামাজিক বাস্তবতায় অসম্ভব ব্যাপার নয়।

প্রস্তাবিত অনলাইন নীতিমালায় কমিশন গঠন করে অনলাইন গণমাধ্যমগুলো পরিচালনার কথা বলা হলেও ওই কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়ন করার ক্ষমতা থাকবে না। ফলে কমিশন সরকার, বিশেষ করে তথ্য মন্ত্রণালয়ের ওপর নির্ভরশীল একটি প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে বলে নোয়াব মনে করে। অতীত অভিজ্ঞতায় দেখা গেছে, এ ধরনের উদ্যোগ সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করার বদলে ক্ষুণ্ন করে।

বর্তমানে বাংলাদেশ ইনফরমেশন সিকিউরিটি পলিসি গাইডলাইন ২০১৩, ন্যাশনাল ব্রডকাস্টিং পলিসি (এনবিপি) ২০১৪, ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি (সংশোধিত) আইন ২০১৩, খসড়া সাইবার সিকিউরিটি আইন ২০১৫ প্রভৃতি আইন ও নীতিমালা রয়েছে, যার সঙ্গে অনলাইন গণমাধ্যমের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ সম্পর্ক রয়েছে। তাই নতুন কোনো নীতিমালা প্রণয়ন না করে এসব আইনসহ ছাপা পত্রিকার জন্য প্রযোজ্য আইন ও নীতিমালাসমূহ অনলাইন গণমাধ্যমের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হতে পারে বলে মনে করে নোয়াব।

অনলাইন পত্রিকা নিবন্ধনের অন্যতম উদ্দেশ্য হিসেবে এ ধরনের গণমাধ্যমের জন্য সরকারি সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে। এ ছাড়া অপসাংবাদিকতা রোধ করার কথাও বলা হয়েছে। সংবাদপত্রের প্রকাশক ও সম্পাদকদের এই সংগঠনের পর্যবেক্ষণ হচ্ছে, প্রকৃতপক্ষে এগুলো কীভাবে করা হবে, তা স্পষ্ট নয়।

নোয়াব মনে করে, এই নীতিমালার সঙ্গে গণমাধ্যমের স্বাধীন মত প্রকাশের অধিকারসহ নতুন এই শিল্পের ভবিষ্যৎ জড়িত। তাই তাড়াহুড়ো না করে যৌক্তিক আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে ও বাস্তবতার নিরিখে যেকোনো উদ্যোগ গ্রহণ করাই বাঞ্ছনীয়।

খোলা আকাশের নিচে ক্লাশ করছে পল্লীমঙ্গল স.প্রা. বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার ১৭৯ নং খালকুলিয়া পল্লীমঙ্গল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা খোলা আকাশের নিচে ক্লাশ করছে। অবকাঠামোগত ঝুঁকি ও আসবাবপত্রের চরম সংকটের কারনে ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষাকার্যক্রম। ঝুঁকির কারনে শিক্ষার্থীদের রোদে পুড়ে বৃষ্টিতে ভিজে ক্লাশ করতে হচ্ছে খোলা মাঠে ।

১৯৭০ সালে উপজেলার দৈবজ্ঞহাটী ইউনিয়নে প্রতিষ্ঠিত এ বিদ্যালয়টি ১৯৯৫ সালে পূনঃনির্মাণ করা হয়। এতে ব্যায় হয় ৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। ২১ বছর পূর্বে নির্মিত এ বিদ্যালয়টি এখন পরিনত হয়েছে মরণ ফাঁদে । যে কোন মুহুর্তে ভেঙ্গে পড়ে ঘটতে পারে বড় ধরনের কোন দূর্ঘটনা। প্রতিনিয়ত আতঙ্কের মধ্যে থাকতে হয় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের। শিশু সন্তানদের বিদ্যালয়ে পাঠিয়ে নিশ্চিন্তে থাকতে পরছেননা অভিভাবকরা। আকাশে মেঘ বৃষ্টি দেখা দিলেই ভেঙ্গে পড়ার ভয়ে অভিভাবকরা বিদ্যালয়ে ছুটে যান তাদের শিশুদের বাড়ি নিয়ে যেতে। তাছাড়া রয়েছে ভূমিকম্পের আতঙ্ক । ছাদের সেল্টার গ্রেড ভিমেই ফাটল, নেই দরজা-জানালা । নেই প্রয়োজনীয় বেঞ্চ, চেয়ার, টেবিল । প্রতিটি পিলারের পলেস্তরা খসে খসে পড়ে রড দৃশ্যমান। প্রতিনিয়ত ঝরে পড়ছে ক্লাশ রুমের পলেস্তরা। বিদ্যালয়ের এ বিপদজ্জনক অবস্থার কারনে নতুন বছরে অন্যত্র ভর্তি হবে বলে জানায়, চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী সুমাইয়া আকতার ও তুলি আকতার ।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অধ্যাপক এসএম মনিরুজ্জামান, সহ-সভাপতি মহিদুল ইসলাম আঙ্গুর জানান, বিদ্যালয়ের অবকাঠামো খুবই নাজুক। দূর্ঘটনার ভয়ে অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের বিদ্যালয় পাঠাতে চায়না। ফলে প্রতিনিয়ত ছাত্র-ছাত্রী সংখ্যা হ্রাস পাচ্ছে। প্রধান শিক্ষিকা মাহামুদা খানম জানান, ৭ বছর ধরে বিদ্যালয়টির এ ভগ্নদশা। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার লিখিতভাবে অবহিত করা হয়েছে। অভিভাবক ফাতেমা বেগম ও মনিরুজ্জামান ক্ষোভের সাথে জানান, পার্শ্ববর্তী একটি সরকারি বিদ্যালয়ে সাইক্লোন সেল্টার কাম বিদ্যালয় থাকলেও পরিত্যক্ত ভবনের জন্য আবারো বরাদ্ধ হয়। অথচ এ বিদ্যালয়ের দিকে কর্তৃপক্ষের কোন নজর নেই। ওই গ্রামে এইএকটাই প্রাথমিক বিদ্যালয়। তাছাড়া এ গ্রামে নেই কোন সাইক্লোন সেল্টার। তাই বিদ্যালয়টি সাইক্লোন সেল্টার কাম বিদ্যালয় হলে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাশসহ বন্যায় আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের কাজে আসবে বলে জানায় এলাকাবাসি।

বাসায় ঢুকে ৩ ভাই-বোনকে কুপিয়ে জখম রাজধানীতে

বিডি নিউজ টিভি ২৪ ডট কম:ঢাকা : রাজধানীর শাহজাহানপুরে বাসায় ঢুকে তিন ভাই-বোনকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার ভোরে রাতে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, নাহিদুল ইসলাম (৩০), তার বোন রোজি আক্তার (২৭) ও পলি আক্তার (২৫)।

প্রতিবেশী জাহেদ আলী জানান, ওই সাততলা ভবনের দোতলায় নাহিদ তার মা আর বোনদের নিয়ে ভাড়া থাকেন। ভোরে মুখোশধারী ৩/৪ জন দুবৃর্ত্ত তাদের রান্নাঘরের জানালার গ্রিল কেটে ঘরে প্রবেশ করে। বুঝতে পেরে রোজি ও পলি চিৎকার করলে পাশের রুম থেকে ভাই নাহিদ ছুটে আসেন।

দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তিনজনের মাথা ও পিঠে কুপিয়ে জখম করে। তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে দুর্বত্তরা পালিয়ে যায়। পরে আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাড়ির এএসআই সেন্টুচন্দ্র দাস এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

৪০০ কোটি টাকা লোকসান দিয়েছে টেলিটক

বিডি নিউজ টিভি ২৪ ডট কম: ঢাকা: সরকারি মোবাইল ফোন কোম্পানি টেলিটকের লোকসানের পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়ে ৩৯৯ কোটি ৮৪ লাখে দাঁড়িয়েছে বলে সংসদকে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট তারানা হালিম।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় সংসদে প্রশ্ন-উত্তর পর্বে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য দেন।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমি তখন ৩০ দিন হলো দায়িত্ব নিয়েছি এসে দেখি টেলিটক গত ১০ বছরে শুধু লোকসানই দিয়েছে। লোকসান বাড়তে বাড়তে ৩৯৯ কোটি ৮৪ লাখ টাকা হয়েছে। এতো দিনেও কেন প্রতিষ্ঠানটি নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারলো না সেটি বোধগম্য নয়।

তবে আশাবাদ জানিয়ে তারানা হালিম বলেন, টেলিটককে লোকসানের হাত থেকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে দাঁড় করাতে ব্যাপক পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। এটিকে নতুনভাবে বাজারজাত করা হবে। এছাড়া দক্ষিণ কোরিয়াকে স্বল্প সুদে ঋণ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছি। একই সঙ্গে দেশের প্রতিটি ডাকঘরে টেলিটকের একটি করে সার্ভিস সেন্টার খোলার সুপারিশ করা হয়েছে।

এ সময় তিনি বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে টেলিটক শুধু ব্যবসা করার জন্য আসেনি। এটি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান। তারপরও আমাদের চেষ্টা আছে টেলিটককে নিজের পায়ে দাঁড় করানোর। আশা করি আমরা সেটি পারবো।

উল্লেখ্য, সরকারি এই মোবাইল কোম্পানির যাত্রা শুরু হয় ২০০৫ সালে। পথচলার শুরু থেকে এখন পর্যন্ত সরকারি এ প্রতিষ্ঠানটি লাভের মুখ দেখেনি।

রাজধানীর মিরপুরে গ্যাসের চুলার আগুনে স্বামী-স্ত্রী দু’জন দগ্ধ

ঢাকা: রাজধানীর দারুস সালাম লালকুটির এলাকায় গ্যাসের চুলার আগুনে স্বামী-স্ত্রী দু’জন দগ্ধ হয়েছেন। বুধবার বেলা ৪টার দিকে দারুস সালমা থানার লালকুটির এলাকার (দ্বিতীয় কোলনি) ৫৫/এ/বি নম্বর বাসার পঞ্চম তলায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, গ্যাসের চুলায় রান্না করতে গিয়ে গৃহবধূ হামিদা মজুমদার আঁখির (৪০) পরনের কাপড়ে আগুন লাগে। এ সময় আঁখির চিৎকারে তার স্বামী আব্দুল্লাহ আরিফ (৩৩) আগুন নেভাতে গেলে তার দু’হাত ঝলসে যায়।

এসময় তাদের চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে গিয়ে দু’জনকে দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নেয়। পরে সেখান থেকে তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

ঢামেক ফাঁড়ির দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

মোড়েলগঞ্জ শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে ব্যপক দুর্নীতির অভিযোগ

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসে দুর্নীতি জেকে বসেছে। পদেপদে টাকা, অনিয়ম আর হয়রানীই চলছে এখানে। বর্তমান শিক্ষা অফিসার মো. মাসুম বিল্লাহ যোগদানের পরে অর্থনৈতিক দুর্নীতি প্রকাশ্য রূপ নিয়েছে। মাত্র দুই বছরে এই শিক্ষা অফিসার কমপক্ষে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও ডেপুটি কমান্ডার লিখিতভাবে এমন অভিযোগ দায়ের করেছেন শিক্ষা সচিব, মহাপরিচালকসহ বিভিন্ন দপ্তরে। গতকাল বৃহস্পতিবার মুক্তিযোদ্ধা সংসদে ওই অভিযোগের বিষয়ে প্রেস ব্রিফিং করেছেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. লিয়াকত আলী খান ও ডেপুটি কমান্ডার আকরামুজ্জামান।
প্রেস ব্রিফিংয়ে লিখিত অভিযোগের কপি সাংবাদিকদের হাতে তুলে দেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার। ওই অভিযোগে বলা হয়েছে, শিক্ষা অফিসার মাসুম বিল্লাহ ২০১৫ সালে পরিকল্পিতভাবে শিক্ষক বদলী করে ২০লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।
২০১৩-১৪ অর্থ বছরে ২৯৯টি বিদ্যালয়ে ভ্যাট বাদে ১৪ হাজার ৪শ’ টাকা করে স্লিপ বরাদ্দ আসে। ওই টাকা থেকে ৭ হাজার টাকা নিয়ে মাত্র ১২শ’ টাকার উপকরণ ধরিয়ে দেওয়া হয় শিক্ষকদেরকে।
দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপে ৯৮টি বিদ্যালয়ে দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী নিয়োগে প্রতিটিতে ৪ থেকে ৬ লাখ টাকা পর্যন্ত ঘুষ হিসেবে নিয়েছেন।
ক্ষুদ্র মেরামতের তালিকায় থাকা ১৬০টি বিদ্যালয়ের প্রতিটি থেকে ৪ হাজার থেকে ৬ হাজার পর্যন্ত উৎকোচ নিয়েছেন শিক্ষা অফিসার মাসুম বিল্লাহ। ফলে অধিকাংশ বিদ্যালয়ে মেরামতের কোন কাজ হয়নি বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।
অভিযোগে আরো বলা হয়েছে যে, ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে ৩০২টি বিদ্যালয়ে স্লিপ বরাদ্দের ১৫ হাজার টাকা হতে ভ্যাট দেওয়ার কথা বলে ১৭শ’ ৫০টাকা থেকে ২৫শ’ টাকা পর্যন্ত কেড়ে নিয়েছেন শিক্ষা অফিসার।
গেল ২য় সাময়ীক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র বাড়তি দামে বিক্রি করে লক্ষাধীক টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি। এ ছাড়া আরো অনেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
এইসব অভিযোগের সরেজমিন তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. লিয়াকত আলী খান। এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. মাসুম বিল্লাহ বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পর্কে আমি অবগত নই’। তবে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগন এ বিষয়ে কিছু বলতে রাজী হননি।

সারাদেশ মোড়লগঞ্জে জাতীয় শোক দিবস পালিত

বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে জাতীয় শোক দিবস। দিবসটি উপলক্ষ্যে আজ শনিবার উপজেলা প্রশাসন, আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে।

দিনের শুরুতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করণ ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পূষ্পার্ঘ্য অর্পনের মধ্যে দিয়ে কর্মসূচি শুরুর পর শোক র্যা লী, আলোচনা সভা, কোরআনখানি, গণভোজ ও বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সকাল ১০ টায় শোক র্যা লী বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে ডা.মোজাম্মেল হোসেন পৌর পার্কে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, মোড়লগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. শাহ্-ই-আলম বাচ্চু, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. লিয়াকত আলী খান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এম.এমদাদুল হক, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ মো. শাহাবুদ্দিন তালুকদার, ইউপি চেয়ারম্যান এইচ, এম মাহামুদ আলী।

ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে হত্যা করতে পারেনি; প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে পেরেছে, কিন্তু তার আদর্শকে হত্যা করতে পারেনি। ভবিষ্যতেও আর পারবে না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বিকালে জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় ‘চিত্রগাঁথায় শোকগাঁথা’ শীর্ষক ছবি প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এ প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৫ আগস্ট আমরা যে কেবল জাতির পিতাকে হারিয়েছি

তা নয়, এ হত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ভূলুণ্ঠিত হয়েছে। এরপর সংবিধান পরিবর্তন করা হয়। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করে দেয়া হয় এবং ইতিহাসও বিকৃত করা হয়।’ তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার পর ২১ বছর বঙ্গবন্ধুর নাম নেয়া যেত না। মুক্তিযুদ্ধের নাম নেয়া যেত না।

শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল বাঙালি জাতিকে শোষণ-বঞ্চনা থেকে মুক্ত করা। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গড়া। বঙ্গবন্ধুর সে স্বপ্নের পথে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ একদিন উন্নত-সমৃদ্ধ হয়ে বিশ্বসভায় মর্যাদার আসনে বসবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটি জাতিকে গড়ে তুলতে গৌরবের ইতিহাস জানতে দিতে হবে। তিনি বঙ্গবন্ধুর ছবি নিয়ে এ প্রদর্শনীর আয়োজনের জন্য ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হককে ধন্যবাদ জানান। তিনি আরও বলেন, এ ধরনের আয়োজনের মাধ্যমে শিক্ষার্থী, শিশু-কিশোররা স্বাধীনতাযুদ্ধের জন্য জাতির ত্যাগ-তিতিক্ষার কথা জানতে পারবে।

চেয়ারম্যান মোঃ রিয়াদুল ইসলাম আফজাল BDnewstv24.com

সত্যের প্রচারের অঙ্গীকার নিয়ে https://www.bdnewstv24.com/tv তার পথ যাত্রায় এক ধাপ এগিয়ে গেছে বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে এর চেয়ারম্যান বাগেরহাট-৪ আসনে এমপি পদপ্রার্থী রিয়াদুল ইসলাম আফজাল আমাদের প্রতিবেদককে এ কথা জানান। সমাজের কোন অন্যায়ই যেন মিডিয়ার আড়ালে না থাকে সে জন্যই আমাদের এই প্রচেষ্টা। তিনি সকলকে তাদের এই উদ্যোগের সাথে একাত্মতা পোষন করে সার্বিক সহযোগিতা করার অনুরোধ জানান। পত্রিকার চেয়ারম্যান রিয়াদুল ইসলাম আফজাল বলেন- ইতোমধ্যে আমরা জয়েন্ট স্টক কোম্পানীজ থেকে নামের ছাড়পত্রও আনতে সক্ষম হয়েছি। শুনেছি ভাল কাজে নাকি আল্লাহ স্বয়ং সহযোগিতা করে থাকেন। আশা করি আল্লাহ আমাদের এই প্রচেষ্টায় সঙ্গে থাকবেন। আর আপনারা তো উছিলা মাত্র। এছাড়া আরও গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ তাদের বক্তব্য পেশ করেন। পরিশেষে এক মিলাদ মাহফিলের অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।

১৭ ১৮ ১৯