আজ বৃহস্পতিবার,১৫ই এপ্রিল, ২০২১ ইং, ২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩রা রমযান, ১৪৪২ হিজরী
>> নাটোরের বড়াইগ্রামের মাঝগাও ইউনিয়নের ঢুলিয়া গ্রামে মসজিদের ইমামতি নিয়ে দ্বন্দ্বে ৮জন আহত >> চাঞ্চল্যকর শিশু সিয়াম হত্যার দুই ঘণ্টার মধ্যে মূল রহস্য উদঘাটন ও রক্তমাখা অস্ত্রসহ কুখ্যাত আসামি গ্রেফতার >> চসিক মেয়র কে জীবন চিত্রের চেয়ারম্যান ডাঃ লুসি খান এর পক্ষ হতে ফুলেল শুভেচ্ছাও অভিনন্দন >> চট্রগ্রামে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান >> সেই ভূমি দস্যু আশা ও তার এক সহযোগীকে গ্রেফতারের পর আদালতে সোপর্দ করেছে >> কঠোর নজরদারিতে রয়েছে চট্টগ্রাম শহর >> লালপুরে নিয়ম বহির্ভুতভাবে বিদ্যালয়ের গাছ কর্তনের অভিযোগ উঠেছে, >> বাংলাদেশ সেনাবাহিনীও অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন ভারতীয় সেনাপ্রধান, >> চট্টগ্রাম, চসিক মেয়রকে স্মারকলিপি >> জেল-জরিমানার বিধান রেখে আইন হচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দর দূষণের কারণে     

ইউপি চেয়ারম্যান তেজাম্মেল হকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎতের অভিযোগ

এপ্রিল ৫, ২০২১,২:৫০ পূর্বাহ্ণ

 
Spread the love

নাটোরে বড়াইগ্রামে ইউপি চেয়ারম্যান তেজাম্মেল হকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎতের অভিযোগ

 

নাটোর প্রতিনিধি —–

 

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হকের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও অর্থ আত্মসাৎতের অভিযোগ উঠেছে।

পরিষদের কয়েকজন সদস্য এসব অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এর প্রতিকার চেয়ে বুধবার ইউপি সদস্যরা সচিব স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, নাটোরের জেলা প্রশাসক ডিসি, বড়াইগ্রামের ইউএনও, ও উপজেলা চেয়ারম্যান সহ বিভিন্ন দফতরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগকারীরা হলেন,ইউপি সদস্য সেলিম হোসেন, দুলাল হোসেন,মহররম হোসেন ,আজমল হোসেন,শাকিল আহম্মেদ,আবেদা বেগম,জামিরুন বেগম,সফুরা বেগম।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক এবং সচিব স›জয় কুমার চাকীর যোগসাজশে গত ৫ বছর ধরে ইউপি সদস্যদের সম্মানীভাতা বাবদ ৩২ লাখ টাকা প্রদান না করে মাসিক মিটিং এর রেজুলেশন বইতে স্বাক্ষর করে নিয়েছেন। সম্মানী ভাতা দেবো দিচ্ছি বলে ৫ বছর ঘুরানোর পর চলতি বছরের জানুয়ারী মাসে মাসিক মিটিং এ ইউপি চেয়ারম্যন সাফ জানিয়ে দেন সম্মানীভাতা দিতে পারবেন না। এছাড়া গত ৫ বছরে টিআর,কাবিখা,জিআর বরাদ্দসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পে ইউপি সদস্যদের নামকেওয়াস্তে বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি বানিয়ে তাদের না জানিয়ে ভ‚য়া স্বাক্ষর করে অর্থ আত্মসাৎ করেছেন ।

এলজিএসপি প্রকল্পে অতি নিম্নমানের কাজ করে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন ।শুধু তাই নয়, রাজস্বখাতের হোল্ডিং ট্যাক্স,জন্ম ও মৃত্যু সনদ,ওয়ারিশন সনদ থেকে প্রাপ্ত অর্থসহ ইউনিয়ন পরিষদের ৪ বছরের পুকুর লিজ এবং দোকান ভাড়ার টাকা পরিষদের তহবিলে জমা না দিয়ে সচিব সন্জয় কুমার চাকির সহযোগীতায় ৮০ লাখ টাকা আÍসাৎ করেছেন। এছাড়া চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক ২০১৯-২০ অর্থ বছরে ভিজিডি সুবিধাভোগীদের বন্ধু চুলা দেওয়ার কথা বলে ৩০৯ জনের কাছ থেকে ৭০০ টাকা করে মোট দুই লাখ ১৬ হাজার ৩০০ শ টাকা আদায় করে। আজ পর্যন্ত কাউকেই চুলা বা টাকা ফেরত দেননি।

ইউপি সদস্যদের না জানিয়ে প্রকল্প গ্রহণ করে অর্থ আত্মসাৎ ইউনিয়ন পরিষদের ট্যাক্সের অর্থ আত্মসাৎ, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন বাবদ অতিরিক্ত টাকা গ্রহণ ও হয়রানি করে আসছেন।ইউপি সদস্যরা তার এই সব দুর্নীতির প্রতিবাদ করতে গেলে, তিনি তাদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। হুমকি ধামকিও দেন।

ইউপির একাধিক সদস্য জানান,আমরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধি। আমাদের সম্মানী তো দেয়না চেয়ারম্যানের দূর্ণিতি,অনিয়ম,অর্থ আত্মসাৎ করছেন। তাঁর কারণে জনগণের প্রাপ্য আমরা জনগণকে দিতে না পারায় তারা আমাদের ওপর ক্ষুব্ধ হচ্ছেন। এর একটা সুষ্ঠু প্রতিকার হওয়া উচিত।

ইউপি সদস্য সফুরা বেগম জানান, ইউপি সদস্য মহররমের কথায় সম্মানী ভাতার জন্য আবেদনে স্বাক্ষর করেছি। চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বাকি অভিযোগ জানা নেই।

এ বিষয়ে জোনাইল ইউপির চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক বলেন,আমার ভাবমূর্তি ও সুনাম ক্ষুণ করার জন্য বিরোধী একটি চক্র এ দরখাস্ত করেছেন। আদৌ এসব অভিযোগ সত্য নয়। আমি ইউনিয়নের একটি টাকাও আত্মসাৎ তো দূরের কথা ছুঁয়ে দেখিনি। সামনে ইউপি ভোট তাই প্রতিপক্ষরা দুই একজন মেম্বার কে হাতে নিয়ে ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে এ কাজ করছে। বন্ধু চুলা সবাইকে দেয়া হয়েছে।

 

Chairman

Md. Riadul Islam (Afzal)
Chairman
www.bdnewstv24.com
 

সর্বশেষ সংবাদ

 

সারাবাংলা

 

 

Site Developed By: Md. Shohag Hossain