আজ বুধবার,৩রা মার্চ, ২০২১ ইং, ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৯শে রজব, ১৪৪২ হিজরী
>> বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি) বিশেষ অভিযান চালিয়ে ১৮টি ট্যাংক বিধ্বংসি রকেট লঞ্চার উদ্ধার >> রাজশাহীর মোহনপুরে কুব্বাস কে কুপিয়ে হত্যা মামলায় আসামী ১৬ >> আসন্ন ৮নং ওয়ার্ড ইউপি নির্বাচনে মোঃ জলিল উদ্দিন হাওলাদার (জলিল শাহ)কে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে দেখতে চায় এলাকার জনগণ, >> ষড়যন্ত্র করে অন্যায়ভাবে ফাঁসানো হয়েছে। এমন ষড়যন্ত্র যা আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছেঃ সামিয়া রহমান এর কথা >> ডিজিটাল দেশে সঠিক ভাবে চলতে গিয়ে কষ্ট পেতে হলো,মানবিক পুলিশ ইউনিটের শওকতকে তাকে বদলি করা হয়েছে, >> মানুষকে ভালোবাসুন >> শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কবে থেকে কীভাবে খোলা যায় সে বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। >> চট্টগ্রাম প্রবাসী ক্লাবের উদ্যোগে শহিদ মিনারে পুষ্প অর্পন করেন – চেয়ারম্যান ও উপদেষ্টা ও সদস্য বৃন্দ। >> ২১শে ফেব্রুয়ারি >> সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর স্বাক্ষরিত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য মনোনীত হয়েছেন- এম,এ রহিম,     

কোনো অর্বাচীনের কথায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ বন্ধ হবেনা: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

নভেম্বর ১৮, ২০২০,৯:৫৪ অপরাহ্ণ

 
Spread the love

নারায়নগঞ্জ : কোনো অর্বাচীনের কথায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণ কাজ বন্ধ করা হবে না বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

বুধবার (১৮ নভেম্বর ) দুপুরে নারায়নগঞ্জ বন্দর এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদীতে নোঙর করা মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত যুদ্ধজাহাজ এমভি আকরাম সংরক্ষণের ব্যাপারে ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, সারা দেশে জাতির পিতার অসংখ্য ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়েছে। পথে-ঘাটে কে কী বলল তা নিয়ে গুরুত্ব দেয়ার কোনো কারণ নেই। বর্তমান সরকার যে কথা বলে তা বাস্তবায়ন করার সক্ষমতা নিয়েই বলে।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন মেঘনা নদীতে নৌ-কমান্ডোরা পাকসেনাদের যুদ্ধজাহাজ এমভি আকরাম ডুবিয়ে দেয়। পরবর্তীতে জাহাজটি সংরক্ষণের উদ্যোগ গ্রহণ করে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রী আরও বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় নৌ কমান্ডোরা চাঁদপুর এলাকায় মেঘনা নদীতে পাকসেনাদের অস্ত্র মজুদকৃত এমভি আকরাম জাহাজটি ডুবিয়ে দিয়েছিল। এটি মহান মুক্তিযুদ্ধের একটি বড় নিদর্শন। এটি সংরক্ষণ করার জন্য ছয়টি মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি নিয়ে উচ্চপর্যায়ের একটি কমিটি গঠন করে দুটি জায়গার নাম প্রস্তাব করা হয়েছে। একটি মাদারীপুর বিআইডব্লিউটিএর টেনিং সেন্টারের পাশে এবং অপরটি চাঁদপুর নতুন পোর্টের পাশে।

গঠিত কমিটি পর্যালোচনা করে প্রতিবেদন পেশ করার পর যে স্থানটি জনবহুল ও দর্শনীয় বলে বিবেচিত হবে, সেখানে জাহাজটি রেখে সংরক্ষণ করা হবে। এজন্য যে পরিমাণ অর্থ চাহিদা দেয়া হবে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় সেটি সরকারের কাছ থেকে বরাদ্দ এনে জাহাজটি স্থায়ীভাবে সংরক্ষণের ব্যবস্থা করবে। জাহাজটির সৌন্দর্য বর্ধনে প্রয়োজনে বিদেশি স্থপতি প্রকৌশলীদের পরামর্শ নেয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী মোজাম্মেল হক।

জাহাজটি পরিদর্শনের সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন- সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মেজবাউদ্দিন, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সেলিম রেজা ও নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিকসহ কর্মকর্তারা।

 

Chairman

Md. Riadul Islam (Afzal)
Chairman
www.bdnewstv24.com
 

সর্বশেষ সংবাদ

 

সারাবাংলা

 

 

Site Developed By: Md. Shohag Hossain