ফরিদপুর ও মাদারীপুরের ডিসিকে হুমকি দিয়ে চিঠি

Spread the love

বিডি নিউজ টিভি ২৪ ডট কমঃঢাকা: ফরিদপুর ও মাদারীপুরের জেলা প্রশাসককে হুমকি দিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফরিদপুর জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা উম্মে সালমা তানজিয়া সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, নাম ঠিকানাবিহীন এক পাতার চিঠিতে তাকে ও তার পরিবারকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে। বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) দুপুরে তার অফিসের ঠিকানায় চিঠিটি পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। অন্যদিকে, মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক মো.ওয়াহিদুল ইসলাম একইরকম চিঠি পাওয়ার তথ্য নিশ্চিত করে জানান, চিঠিটি তিনি বুধবার সন্ধ্যায় পেয়েছেন।

ফরিদপুর জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা উম্মে সালমা তানজিয়া বলেন, ‘গতকাল বুধবার অফিসে চিঠির ডাক এসেছিল। তার সঙ্গে একটি চিঠির খাম আসে। এতে লাল কালিতে লেখা ছিল ‘অতীব গোপনীয়’ বিষয়। আরও লেখা ছিল, নির্বাচনে নিরপেক্ষতা বজায় না রাখলে আমাকে ও আমার পরিবারকে দেখে নেওয়া হবে। চিঠি হাতে লেখা ছিল, তবে কারও নাম লেখা ছিল না।’
হুমকি দেওয়া চিঠিতে লেখা হয়েছে:

‘জনাব, আপনি আমাদের সালাম গ্রহণ করুন। আশাকরি ভালো থাকবেন। তবে বর্তমান সময়ে আপনার সকল কার্যকলাপ, তৎপরতা আপত্তিকর,পক্ষপাত দুষ্টে দৃষ্ট। আপনি কি প্রজাতন্ত্রের?? আওয়ামী লীগের কর্মী??

আপনারা হয়ত: সব খবর রাখেন না?? নির্বাচনের আগে পরে কিছু তো হবে। কেউ বসে নাই তাই আপনার প্রতি অনুরোধ আগামী ৩ দিনের মধ্যে ১০০% নিরপেক্ষ হয়ে যান। হতে হবে। অন্যথায় এ্যাকশন:-আপনার পরিবার, পরিজন, আত্মীয়-স্বজন, স্থাবর অস্থাবর সকল স্বার্থের ওপর চরমভাবে আঘাত করা হবে। এবার কৌশল পরিবর্তন-যেখানেই পাওয়া যাবে সেখানেই আক্রান্ত করা হইবে। এবার আপনারাই টার্গেট এবার আর ছাড় দেয়া হবে না।

আপনার প্রতিষ্ঠানের তৎপরতা মনিটর হচ্ছে। আপনার অপরাধ দিন দিন ভারী হচ্ছে।তাই টার্গেট থেকে বাদ পড়তে ১০০% নিরপেক্ষতা প্রমাণ করুন। অন্যথায়: এ্যাকশন।

চলমান-’

উম্মে সালমা তানজিয়া বলেন, ‘চিঠির শেষে কারও নাম লেখা ছিল না। শুধু লেখা ছিল ‘চলমান’। এর অর্থ হতে পারে তারা আবারও এ বিষয়ে হুমকি দিয়ে চিঠি পাঠাতে চায়।’

তিনি বলেন, ‘ডিভিশনাল কমিশনার, প্রধান নির্বাচন কমিশনার, নির্বাচন কমিশন সচিব, পুলিশের ডিভিশনাল আইজি এবং গোয়েন্দা বিভাগকে আমি বিষয়টি লিখিত আকারে জানিয়েছি। অতীতেও বিভিন্ন কারণে এমন চিঠি আমরা পেয়েছি। তাই এতে আমি ভীত নই। সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে আমার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।’

এদিকে, মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলামও চিঠিটি পেয়ে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করেছেন বলে জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *