আজ সোমবার,২৩শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং, ১০ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৭ই শাবান, ১৪৩৯ হিজরী
>> দুই সিটি নির্বাচন: বিরোধী জোটের চার উপকমিটি >> চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাব আয়োজিত মহান স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা >> চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের মানববন্ধনে বক্তারা- সাংবাদিক সুমন হাসানের উপর নির্যাতনকারী অভিযুক্তদের উপযুক্ত শাস্তির আওতায় না আনলে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি >> অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধনের দাবিতে আবেদনপত্র পেশ ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমানে অনলাইন গণমাধ্যমের বিকল্প নেই -হাসানুল হক ইনু >> চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের সভা অনু্ষ্ঠিত >> রাষ্ট্রপতির বক্তব্য সমর্থন করলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি >> বিএনপির কাছে ৩০ প্রার্থীর তালিকা দিল এলডিপি >> ছাত্রলীগের হামলা: ঢাকা বার নির্বাচনের ফের ভোট গণনা শনিবার >> স্ত্রীর রান্না অখাদ্য, বিচ্ছেদ চেয়ে আদালতে স্বামী >> চট্টগ্রামে ২০ ফেব্রæয়ারি থেকে শুরু একুশে বইমেলা     

তিন তালাক বিল প্রত্যাহারের দাবি মুসলিম সংগঠনের

ডিসেম্বর ২৪, ২০১৭,৭:৩৫ অপরাহ্ণ

 
Spread the love

বিডি নিউজ টিভি ২৪ ডট কম:ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্ট অসাংবিধানিক ঘোষণার পরই তিন তালাক বিলে সায় দেয় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা। বিল পেশ করা হয়েছিল সংসদের উভয় কক্ষে। ফলে আইনে পরিণত হতে চলেছিল এই বিল। যার ফলে তিন তালাক দেওয়া অপরাধ হিসেবে পরিগণিত হয়। কিন্তু এবার তারই বিরোধিতা করল অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড। রোববার জরুরিভিত্তিতে বৈঠকে বসেন সংগঠনের সদস্যরা। তারপরই এই বিল প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়।
তিন তালাক বিল সংসদের উভয়কক্ষে পেশ হওয়ার পর থেকেই এ নিয়ে অসন্তোষ বাড়ছিল। মুসলিম সম্প্রদায়ের একাংশের অভিযোগ ছিল, এই বিল নিয়ে আসা মানেই সরাসরি শরিয়তি আইনে হস্তক্ষেপ। যদি মুসলিম জনজাতির জীবনের মান উন্নয়ন নিয়েই এই বিল আনতে হয়, তাহলে মুসলিমদের সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনা করা উচিত ছিল। অন্য আর এক পক্ষের অভিযোগ ছিল, এ নিয়ে রাজনীতি করছে শাসকসদল বিজেপি। হিন্দুদের সন্তুষ্ট করতেই তড়িঘড়ি বিল প্রণয়ন করা হয়। এ নিয়েই এদিন জরুরি বৈঠকে বসেন অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের সদস্যরা। বৈঠক শেষে সংগঠনের তরফে সাজ্জাদ নোমানি জানান, ‘এই বিল তৈরির সময় কোনওরকম প্রক্রিয়া মানা হয়নি। সংশ্লিষ্ট কারও সঙ্গে আলোচনাও করা হয়নি।’ সংগঠনের প্রেসিডেন্ট এ কথা প্রধানমন্ত্রীকে জানাবেন। এই বিল স্থগিত ও প্রত্যাহারের দাবিও জানানো হয়েছে সংগঠনের তরফে।
কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ সংসদে এই বিল আনেন। যেখানে মুখে বলা, হোয়্যাটসঅ্যাপ বা অন্য কোনও মাধ্যমে দেওয়া তাৎক্ষণিক তিন তালাক আইনত নিষিদ্ধ। অপরাধীর তিন বছর সাজা ও মোটা অঙ্কের জরিমানারও প্রস্তাব ছিল বিলে। ইতিমধ্যেই একাধিক রাজ্য এ বিলকে সমর্থন জানিয়েছে। দুই কক্ষে পাশ হলেই তা আইনে পরিণত হবে। ফলে দীর্ঘ লড়াইয়ের শেষে বিচার পেতে পারতেন মুসলিম মহিলারা। তবে বিলের খসড়া সামনে আসার পর থেকেই এ নিয়ে বিরোধিতা করছেন মৌলবিরা। শরিয়তি আইনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ উঠেছে।
মৌলবিদের দাবি, তিন তালাক রদ করতে হলে মৌলবিদের সঙ্গে আলোচনা করেই বিলের স্বরূপ ঠিক করা উচিত ছিল। কিন্তু মুসলিম বিদ্বেষের কারণেই বিজেপি সে পথ মাড়ায়নি বলে অভিযোগ উঠেছিল। এবার সরাসরি বিরোধিতার পথেই হাঁটল মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড।

 

Chairman

Md. Riadul Islam (Afzal)
Chairman
www.bdnewstv24.com
 

সর্বশেষ সংবাদ

 

সারাবাংলা

 

 

Site Developed By: Md. Shohag Hossain