ট্রাফিক সচেতনতা মুলক কর্মসুচি


সাংবাদিক রিয়াদুল ইসলাম (আফজাল)
ডেমরা ট্রাফিক জোন ট্রাফিক পূর্ব বিভাগ ডি এম
পি ঢাকা
ফুট ওভার ব্রিজ হেলমেট ব্যবহার এবং সতর্কভাবে চলাচল করার জন্য মূল্যবান আলোচনা করেন জনাবা এসি নাজমুন ও সাইফুল সাহেব । উপস্থিত ছিলেন জনাব টি আই মন্জু ও সাইদুল সাহেব এবং সার্জেন্ট ও ট্রাফিক পুলিশ

বাংলাদেশকে ভাল বাসুন

আমাদের জন্মভূমির নাম মাতৃভূমির নাম আমার মায়ের দেশের নাম বাংলাদেশ তাই আমি বাংলাদেশকে ভালো বাসি 

শহীদ রমিজউদ্দিন কলেজের পাশে আন্ডারপাসের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

 

shohel hossain/bdnewstv24/12 August 2018

রাজধানীর কুর্মিটোলায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজ (এসআরসিসি) সংলগ্ন বিমানবন্দর সড়কে পথচারী আন্ডারপাস নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ সকাল ১০টায় বিমানবন্দর সড়কে বীরসপ্তক ক্রসিং পয়েন্টের কাছে এই প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচটি ইমাম, সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদসহ বেসামরিক ও সামরিক শীর্ষ কর্মকর্তারা।

গত ২৯ জুলাই জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হন। এ ঘটনার পর নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। এর পর তাদের দাবি পূরণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এরই মধ্যে ওই কলেজশিক্ষার্থীদের জন্য পাঁচটি বিশেষ বাস দিয়েছেন শেখ হাসিনা। এ ছাড়া সরকারের পক্ষ থেকে নিহত দুজনের পরিবারকে ২০ লাখ টাকা করে দেয়া হয়েছে। আর জাবালে নূর পরিবহনের রুট পারমিট বাতিল করা হয়েছে।

মুহাম্মদ খালেদ সাইফুল্লাহ’এর কবিতা “ঈদ” 


রমজানের শেষে চাদ উঠেছে,
চাদ দেখে সবে বলে ঈদ এসেছে।
আনন্দে আত্মহারা সবে,
বলে চাদের রাত ফুরাবে কবে?
ঈদ হলো নাম আনন্দের,
পরে সবে নতুন জামা পছন্দের।
নতুন কাপড় জামা পরে সেজেছে,
সবের মুখে এক আওয়াজ ঈদ এসেছে।
রওনা হয় পরতে নামাজ,
যেন গড়ে ওঠে ঐক্যের সমাজ।
মিলায় একে অপরে কাধে কাধ,
থাকে না এ দিন খুশির বাধ।
আসে বেড়াতে সব আত্মীয় স্বজন,
জমে আমেজ সাথে রসিক ভোজন।
ঈদ আসুক আনন্দ,
ঐক্য,ভালবাসা নিতে জীবনে বার বার,
কেহারও মানতে হয় না যেন
এ আনন্দ উল্লাসের সামনে হার।

ওরা আমাকে অন্যায়ভাবে আক্রমণ করছে: মেসি

বিডি নিউজ টিভি ২৪ ডট কম:ডেস্ক: মেসির ওপর আর্জেন্টাইন ভক্তদের প্রত্যাশা অনেক বেশি। আর এ প্রত্যাশা যখন পূরণ করতে ব্যর্থ হচ্ছেন এ ফুটবলার, তখনই তাকে সমালোচনায় বিঁধছেন তারা।কারণ তারা চান মেসি তাদের বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ এনে দিবেন।
আবার অনেকে তো বলে থাকেন, মেসি নাকি নিজের দেশ আর্জেন্টিনার চেয়ে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনাতেই মন প্রাণ উজার করে দিয়ে খেলেন! এবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন স্বয়ং মেসি।
নিজের দেশের সংবাদপত্রে খোলাখুলি বললেন, দেশের হয়ে খেলা নিয়ে অন্যায়ভাবে অনেকেই তার সমালোচনা করে থাকেন। বিশেষ করে কোপা আমেরিকা ফাইনালে হারের পরে যে ভাবে নিন্দুকরা তার বিরুদ্ধে ‘অপপ্রচার’ করতে নেমেছিল, তা একেবারেই মেনে নিতে পারেননি তিনি।
সেই সময়ে তার বিরুদ্ধে বলা কথাগুলির মধ্যে ব্যক্তিগত আক্রমণের গন্ধও খুঁজে পেয়েছেন মেসি।
আর্জেন্টিনার ‘লা ন্যাসিয়ন’ সংবাদপত্রে মেসি বলেছেন, ‘কোপা আমেরিকার সময় অনেক কথা বলা হয়েছিল। সেই সব মন্তব্যগুলোর সঙ্গে বাস্তবের কোনো সম্পর্ক ছিল না। বেশির ভাগ মন্তব্য আমাকে উদ্দেশ্য করে করা হয়েছিল। আমি নাকি দেশের হয়ে খেলতে চাই না। জাতীয় সঙ্গীতও গাই না। আমি নাকি আর্জেন্টিনার জাতীয় দলের জার্সির গুরুত্ব বুঝি না। এ সব মন্তব্য শুনে একটাই কথা মনে হত। অন্যায়ভাবে ওরা আমাকে আক্রমণ করছে।’
সমালোচকদের মন্তব্য নিয়ে যে তিনি ভাবতে বাধ্য হয়েছিলেন, সে কথাও গোপন করেননি মেসি। বলেছেন, ‘অনেক সময় ভেবেছি, সত্যি কি আমিই সমস্ত সমস্যার কারণ? নাকি আমাদের পুরো দলটাই খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে? কিন্তু সেই ভাবনাগুলো চিরস্থায়ী হয় না। মন্তব্যগুলোকে পিছনে ফেলে দিয়ে এগিয়ে গিয়েছি।’
নিজের সেরাটা দিয়েও যে সব সময় সেরা হওয়া যায় না, সেই যন্ত্রণা বিদ্ধ করে বিশ্ব ফুটবলের সর্বকালের অন্যতম শ্রেষ্ঠ তারকাকে। মেসির কথার মধ্যে বেরিয়ে আসে সেই যন্ত্রণার সুর, ‘মাঝেমধ্যে আপ্রাণ চেষ্টা করার পরেও নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী ফল পাওয়া যায় না। জীবনে কিছু ঘটনা ঘটে, যার কোনো উত্তর পাওয়া যায় না।’

আর্জেন্টিনার অধিনায়ক হিসেবে মাঠে নামতে যে তিনি গর্বিত বোধ করেন, তা জানিয়ে মেসি বলেন, ‘যখন মনে করি, এই আর্মব্যান্ডটা আমাদের দেশের কী সব বিখ্যাত নামের শরীরে উঠেছে, আমার গায়ে কাঁটা দিয়ে ওঠে। তৎক্ষণাৎ আমার মধ্যে দায়িত্বজ্ঞান তৈরি হয়। মনে হয়, ভালো খেলে আমার দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আমার দায়িত্ব দেশের হয়ে ভালো খেলা এবং দেশকে ফুটবল মাঠে জয় এনে দেওয়ার ক্ষেত্রে অবদান রাখা।’

মুহাম্মদ খালেদ সাইফুল্লাহ’এর কবিতা লাল সবুজের প্রাণ-


লাখ জনতার
রক্ত স্নান
তার বিনিময়
লাল সবুজের প্রাণ।
স্বাধীনতা নামক মূলধন করিতে অর্জন,
দিয়েছি লাখ তাজা জীবন দিয়েছি লাখ মা-বোনের ইজ্জত বিসর্জন।
স্বাধীনতার তার নাম
সে’তো লাল সবুজের প্রাণ
দেশপ্রেমিক শহীদের আত্মত্যাগ এর সাথে চলে না যে কোন তুলনা,
সে স্বাধীনতা নামক মহাকাব্যের গান হে নাগরিক তুমি ইহ জনমে ভুলনা।
হুব্বুল অতানি মিনাল ঈমান রাখিব সদা এ স্বাধীনতা কে অম্লান
প্রয়োজনে ধরবো স্বাধীনতা রক্ষায় অস্র আবার সাজবো মুক্তিযোদ্ধার বেশ, বিশ্ব মানচিত্রে চির অক্ষত রাখতে একটি নাম বাংলাদেশ।

আসিফের ‘ফুঁ’, ২ দিনেই ৪ লাখ

বিডি নিউজ টিভি ২৪ ডট কম:ঢাকা: জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরের নতুন গানের ভিডিও ‘ফুঁ’। মাত্র দুই দিনে পেরিয়েছে ৪ লাখ।
গত ২৫ জানুয়ারি রাতে গানের ভিডিওটি মুক্ত হয় ‘ধ্রুব মিউজিক স্টেশন’ (ডিএমএস) এর অফিসিয়াল ইউটিউবে চ্যানেলে। গানটি প্রকাশের পর থেকেই এটি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে দর্শকদের মাঝে। আসিফ ভক্তরা হুমড়ি খেয়ে পড়েছেন ভিডিওটিতে।
জনপ্রিয় গীতিকবি মারজুক রাসেলের লেখ ও সুরে এর সংগীতায়োজন করেছেন জে কে মজলিশ। গানটির ভিডিওতে অনেকটাই ক্রেজি লুকে দেখা গেছে আসিফ আকবরকে। আর গানটিতে তার সাথে মডেল হিসেবে রয়েছেন সময়ের অন্যতম আলোচিত মডেল সিনি স্নিগ্ধা। গানের কথার সাথে মিল রেখে গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন চলচ্চিত্র পরিচালক সৈকত নাসির।
আসিফ বললেন, অনেক দিন পর মারজুক রাসেলের সাথে কাজ করলাম। ‘ফুঁ’ গানের শিরোনামের মধ্যেই একটি চমক আছে। আর ভিডিওতেও সেই চমকের ধারা অব্যাহত রাখা হয়েছে।

জন্মদিনে শাহরুখ ভক্তদের জন্য বিশেষ পরীক্ষা

আপনি কি আসলেই বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের ফ্যান। যদি হয়ে থাকেন, সেটা প্রমাণের জন্য আপনাকে দিতে হবে পরীক্ষা। কিং খানের ৫২তম জন্মদিন উপলক্ষে বিশেষ এ পরীক্ষার ব্যবস্থা করেছে কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা। যেখানে শাহরুখ ভক্তদের জন্য রাখা হয়েছে আটটি প্রশ্ন। প্রশ্নগুলোর ঠিক ঠিক উত্তর দিতে পারলেই আপনি শাহরুখের জাবরা ফ্যান হিসেবে গণ্য হবেন।

আটটি প্রশ্নের প্রতিটির জন্যই রয়েছে উত্তরের তিনটি করে অপশন। এর মধ্যে যেকোনো একটিতে ক্লিক করলেই আপনাকে জানিয়ে দেয়া হবে যে, আপনার দেয়া উত্তরটি সঠিক না বেঠিক। চলুন তবে দেখে আসি কি কি প্রশ্নের উত্তর দিলেই আপনি হবেন শাহরুখের জাবরা ফ্যান।

প্রথম প্রশ্ন: শাহরুখ খান সর্বপ্রথম কোন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন? যদিও ছবিটি মুক্তিপ্রাপ্ত নয়। আর এই তথ্যটা যাদের জানা নেই তারা চোখ বন্ধ করে ‘দেওয়ানা’ নামের ওপরেই ক্লিক করবেন। কিন্তু আপনাদের উত্তর ভুল। ক্যারিয়ারে প্রথম ‘দিল আশনা হ্যায়’ নামের একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন বলিউড বাদশা। কিন্তু ছবিটি মুক্তির মুখ দেখেনি।

দ্বিতীয় প্রশ্ন: শাহরুখ খান জীবনে প্রথম কোন ছবিতে অভিনয় করেন? এই প্রশ্নটার উত্তরও অধিকাংশ ভক্ত ভুল দেবেন। কারণ, তিনি প্রথম যে ছবিটিতে অভিনয় করেছিলেন অধিকাংশ ভক্ত হয়তো সেই ছবিটির নামই শোনেননি। সিনেপ্রেমীরা শাহরুখের প্রথম ছবি হিসেবে ‘দিওয়ানা’কেই জানেন। তবে তিনি প্রথম অভিনয় করেছিলেন ‘ইন হুইচ অ্যানি গিভস ইট দোজ ওয়ানস’ নামের একটি ছবিতে। কি ভড়কে গেলেন তো? দুঃখের ব্যাপার হচ্ছে, ওই ছবিটিও মুক্তির মুখ দেখেনি।

তৃতীয় প্রশ্ন: শাহরুখ খানের জন্ম সাল কোনটি? পানির মতো সোজা এ প্রশ্নটির সঠিক উত্তর সবারই জানা। ১৯৬৫ সালের ২ নভেম্বর। কি মিলেছে তো? সেই বিশেষ দিনটিই তো আজকে। যে দিনটিকে ঘিরে শাহরুখ ভক্তদের এতো মাতামাতি।

চতুর্থ প্রশ্ন: নিজের অভিনীত কোন ছবিটি কখনোই দেখেননি শাহরুখ খান? এটির উত্তর জানলে চোখ কপালে উঠবে অনেকেরই। যে ছবির মাধ্যমে তাঁর রূপালী পর্দায় অভিষেক, যে ছবিতে তিনি জিতে নিয়েছিলেন ক্যারিয়ারের প্রথম ‘ফিল্ম ফেয়ার পুরস্কার’, সেই ‘দিওয়ানা’ ছবিটিই কিনা দেখেননি কিং খান! হ্যা, চতুর্থ প্রশ্নটির উত্তর এটিই। ‘দিওয়ানা’-কে তাঁর অভিষেক ছবি বলার কারণ, এটিই তার অভিনীত প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি।

পঞ্চম প্রশ্ন: কোন নামের চরিত্রে শাহরুখ খান বেশি বার অভিনয় করেছেন? শাহরুখের ছবি যারা নিয়মিত দেখেন তারা সকলেই পারবেন এটির উত্তর। হ্যা, উত্তরটি হচ্ছে রাহুল। এই নামেই সবচেয়ে বেশি বার পর্দায় দেখা গেছে কিং খানকে।

ষষ্ঠ প্রশ্ন: কোন গানের শুটিংয়ে শাহরুখ জলপ্রপাতের উপর থেকে পড়ে যেতে যেতে রক্ষা পান? কিং খানের সাম্প্রতিক ছবিগুলো যারা দেখেছেন তাদেরই জানার কথা এই প্রশ্নটির উত্তর। জানা থাকলে মিলিয়ে নিন। ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘দিলওয়ালে’ ছবিতে কাজলের সঙ্গে ‘গেরুয়া’ শিরোনামের গানটির শুটিংয়ের সময় এমন দুর্ঘটনার শিকার হয়েছিলেন কিং খান। কি মিলেছে তো?

সপ্তম প্রশ্ন: শাহরুখের ছবিতে সবচেয়ে বেশি বার নায়িকা হয়েছেন কে? এই প্রশ্নটির উত্তরে অনেকেই হয়তো কাজল কিংবা রানী মুখার্জীর নামের ওপরে ক্লিক করবেন। তাহলে আবারও ভুল করলেন। তিনি জুহি চাওলা। মিষ্টি চিহারার এই নায়িকাই সবচেয়ে বেশি বার স্ক্রিন শেয়ার করেছেন শাহরুখ খানের সঙ্গে।

অষ্টম প্রশ্ন: কয়টি টিভি সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন শাহরুখ? ভক্তদের জন্য এটি অবশ্য একটি কঠিন প্রশ্নই বটে। কেননা, শাহরুখের টিভি জগত সম্পর্কে সঠিক ধারণা নেই অনেকেরই। তাদের জন্য বলছি, তিনটি টিভি সিরিয়ালে অভিনয় করেছিলেন বলিউড বাদশাহ।

ব্যাস, এভাবে আটটি প্রশ্নেরই সঠিক উত্তর দিতে পারলে আনন্দবাজার আপনাকে জানিয়ে দেবে যে, আপনিও শাহরুখ খানের জাবরা ফ্যানদের একজন। একবার চেষ্টা করুন তবে।

ডিসেম্বরেই বিয়ে করছেন পাওলিও দাম

 

মো রাজিব তালুকদার: বছরের শেষ দিকে এসে বোধহয় তারকাদের বিয়ের ধুম পড়ে গেলে। গতকালই খবর বেরিয়েছে, ডিসেম্বরে বিয়ে করছেন এই সময়ের সবচেয়ে বড় তারকা জুটি বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা।

সেই খবরের রেশ না কাটতেই নয়া বিয়ের খবর। এবারের সুখবরটা শোনালেন কলকাতার হট সেনসেশন অভিনেত্রী পাওলি দাম। এক ধাপ এগিয়ে তিনি আবার বিয়ের দিনক্ষণও ঠিক করে ফেলেছেন। ভারতীয় মিডিয়ার খবর বলছে, আগামি ৪ ডিসেম্বর সোমবার বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন পাওলি। পাত্র ব্যবসায়ী অর্জুন দেব। কলকাতার তাজ বেঙ্গলে হবে বিয়ের অনুষ্ঠান। যেহেতু পাত্রপক্ষের নিবাস গুয়াহাটি, তাই সেখানে ১০ ডিসেম্বর বিয়ের রিসেপশন দেয়া হবে।

পাওলি যে বিয়ে করতে চলেছেন তার গুঞ্জন অনেক দিন ধরেই চলছিল। তবে নায়িকা নিজের মুখে কোনও কিছুই স্বীকার করতে চাইছিলেন না।

এখনও পাওলি এ ব্যাপারে কিছু বলতে নারাজ। বিয়ে তাঁর কাছে ভীষণ ব্যক্তিগত একটি সিদ্ধান্ত। তাই গোটা বিষয়টা ব্যক্তিগত পর্যায়েই রাখতে চান। কিন্তু খবর তো ছড়াতেই থাকে। প্রথমে বিয়ের গোটা অনুষ্ঠানই গুয়াহাটিতে হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পরে সিদ্ধান্ত হয়, বিয়ে হবে কলকাতায় মেয়ের বাড়িতে। ৬ তারিখে পরিবারসহ গুয়াহাটি যাবেন পাওলি-অর্জুন। বিয়েতে ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর ঘনিষ্ঠ সকলকেই আমন্ত্রণ জানাবেন পাওলি। ইতোমধ্যে অনেকের কাছে সেভ দ্য ডেট মেসেজ পৌঁছেও গিয়েছে। অর্জুনের ব্যবসায়ী পরিবৃত্তটিও কম বড় নয়। অতিথি তালিকায় রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। পাওলির এক ঘনিষ্ঠজন জানিয়েছেন, নিজে গিয়েই দিদি মমতাকে আমন্ত্রণ জানাবেন নায়িকা।

ইতালীয় কনসাল জেনারেলের এক পার্টিতে আলাপ হয় পাওলি আর অর্জুনের। তার পরেও একাধিক অনুষ্ঠানে দুজনের দেখা হয়। প্রেম পর্বের সেই শুরু। প্রেমের বিষয়টিও পাওলি গোপন রাখতে চেয়েছিলেন। কিন্তু এসব তো চাপা থাকে না। হবু বরকে তিনি অবশ্য জোজো বলে ডাকেন। তবে বিয়ে করলেও কখনো অভিনয় ছাড়ছেন না নায়িকা। পাওলি এর আগে বহুবারই বলেছেন, বিয়ে করলেও অভিনয় চালিয়ে যাবেন। অর্জুনেরও এ ব্যাপারে নাকি পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। তবে বিয়ের জন্য তিনি জানুয়ারি পর্যন্ত ছুটি নিয়েছেন বলে খবর। ফেব্রুয়ারি থেকে ফের কাজ শুরু করবেন। তাঁর আগামি ছবির শিডিউল অন্তত তেমন কথাই বলছে।